Shopping Cart

Aftermath of a cyclone

By Roshni Ghosh

দেশের ইলেক্ট্রিক বিভাগের কর্মচারীরা যা করছেন, খুবই প্রশংসনীয়। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই অনেকটা রেস্টোর করেছেন ওঁরা।

একটু ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা বলি। সাইক্লোন স্যান্ডির সময় নিউ ইয়র্কে থাকতাম। ইংলিশ ভিংলিশ ছবিতে শ্রীদেবী যে জায়গায় ভাইঝিকে ছাড়তে আসেন, আমাদের অ্যাপার্টমেন্টটা ছিল ঠিক তার উল্টোদিকে। যে পাড়ায় থাকতাম ডাউনটাউন ম্যানহাটানে সেটা ইউনিভার্সিটি এলাকা। আর চারপাশে বড়লোক আর সেলেব্রিটি দের ছড়াছড়ি। হাঁটতে গেলে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি বা টম ক্রুজ কে দেখতে পাওয়া যেতেই পারে। তা স্যান্ডির পরে সে জায়গাতে জল, কারেন্ট, ফোন, ইন্টারনেট ছিল না সাতদিন। শীতের জায়গা তাই ঘরে আলো হাওয়ারও সেরকম ব্যবস্থা নেই। অ্যাপার্টমেন্টের বাইরে ঘুটঘুটে অন্ধকার। গ্যাস লাইন ইলেক্ট্রিকের সাথে কানেক্টেড বলে গ্যাস জ্বালিয়ে রান্না করার উপায় নেই। সেখানে পার্শিয়ালি কারেন্ট আর জল ফিরতে লেগেছিল সাত দিন। টেলেফোন আর ইন্টারনেট আরও দিন সাতেক। নিউ ইয়র্কের কুইন্সের কিছু জায়গায় লোকে ইলেক্ট্রিসিটি, জল ছাড়া কাটিয়ে ছিল সপ্তাতিনেক। এই স্যান্ডির তেজ কিন্তু আমফানের অর্ধেক ছিল।

প্লিজ, ইলেক্ট্রিসিটি অফিসে ঘেরাও করবেন না বা কর্মচারীদের গালাগাল দেবেননা। তাতে আপনার বাড়িতে তাড়াতাড়ি কারেন্ট আসবে না। যদি রাগ করতেই হয়, বিক্ষোভ দেখাতেই হয়, তাহলে প্রশ্ন করুন পর্যাপ্ত সাইক্লোন শেল্টার নেই কেন? প্রপার ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট টিম নেই কেন? সাত দিন আগে থাকতে খবর পাওয়া সত্ত্বেও পাড়ায় পাড়ায় টেম্পোরারি খাবার আর জলের বেসিক ব্যবস্থা করা গেল না কেন? ইলেক্ট্রিক লাইন এখনো মাটির তলায় ঢোকান হয়নি কেন? সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ জঙ্গল যথেচ্ছ কেটে ফেলা হচ্ছে কেন? এই জঙ্গলগুলোই কিন্তু অতীতে সাইক্লোনের দাপট থেকে আমাদের রক্ষা করেছে। দাবী তুলুন যে সুন্দরবনের জঙ্গল সাফ করে ভারত-বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগের রামপুর পাওয়ার প্ল্যান্ট প্রকল্প বন্ধ হোক।

জানি আপনাদের ক্ষোভ হচ্ছে, রাগ হচ্ছে। আর হওয়াটাই স্বাভাবিক। সেগুলোকে চ্যানেলাইজ করে লং টার্ম সল্যুশনের দাবী তুলুন। তাহলেই ভবিষ্যতে এ ধরণের বিপর্যয় এড়ানো যাবে। ইলেক্ট্রিক অফিসে ভাংচুর করে রাগ ক্ষোভের অযথা অপচয় করবেন না।


Roshni has lived though cyclone Sandy. She has some experience to share and some logical points to share. She is an accomplished writer, who js lawyer by profession.

Catch Roshni’s writings in her Facebook page.

%d bloggers like this: